বৃহস্পতিবার, জুন 23, 2022

মেট্রো ও ম্যাকসন্স স্পিনিংয়ের বিষয়ে বিএসইসির তদন্ত কমিটি

পুঁজিবাজার ডেস্কঃ পুঁজিবাজারে বস্ত্র খাতে তালিকাভুক্ত কোম্পানি মেট্রো স্পিনিং ও ম্যাকসন্স স্পিনিং মিলসের বিরুদ্ধে তদন্ত কমিটি গঠন করেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)।

অবণ্টিত লভ্যাংশ, বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) সংক্রান্ত স্ক্রুটিনাইজারদের রিপোর্ট ও বিগত তিন বছরের আর্থিক বিবৃতিসহ সম্পর্কিত বিষয়ে তদন্ত করে আগামী ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন কমিশনে দাখিল করা হয়েছে।

সম্প্রতি মেট্রো স্পিনিং এবং ম্যাকসন্স স্পিনিং মিলসের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের কাছে এ-সংক্রান্ত একটি চিঠি দেয়া হয়েছে বলে বিএসইসি সূত্রে জানা গেছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ব্যবস্থাপনা পরিচালককেও বিষয়টি অবহিত করা হয়েছে।

গঠিত তদন্ত কমিটির সদস্যরা হলেন বিএসইসির অতিরিক্ত পরিচালক মো. কাওসার আলী (কমিটি প্রধান), উপপরিচালক মো. শাহনেওয়াজ, সহকারী পরিচালক আল ফরহাদ বিন কাশেম, সহকারী পরিচালক মাহমুদুর রহমান (সদস্য সচিব)।

বিএসইসির চিঠিতে বলা হয়, উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্ত কোম্পানি মেট্রো স্পিনিং ও ম্যাকসন্স স্পিনিং মিলসের বিরুদ্ধে বিভিন্ন বিষয়ের ওপর তদন্ত কার্যক্রম পরিচালনা করা প্রয়োজন বলে মনে করে কমিশন। এরই ধারাবাহিকতায় সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ অর্ডিন্যান্স, ১৯৬৯ (১৯৬৯ সালের অর্ডিন্যান্স নং xvii)-এর ২১ ধারা এবং বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন আইন, ১৯৯৩ (১৯৯৩ সালের ১৫নং আইন)-এর ১৭ক ধারা অনুযায়ী কোম্পানিটির বিরুদ্ধে তদন্ত কমিটি গঠন করার নির্দেশ দেয়া হলো। তদন্ত কমিটিতে বিএসইসির চারজন কর্মকর্তা অন্তর্ভুক্ত করা হলো। তদন্ত কর্মকর্তারা এ আদেশ জারির ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে বিএসইসির কাছে প্রতিবেদন জমা দেবেন।

মেট্রো স্পিনিং ও ম্যাকসন্স স্পিনিং মিলসের বিরুদ্ধে যেসব বিষয়ে তদন্ত কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে সেগুলো হলো- তালিকাভুক্তির পর থেকে কোম্পানিগুলোর অ্যাকাউন্টে অবণ্টিত নগদ লভ্যাংশ, আইপিওর বিপরীতে অফেরত পাবলিক সাবস্ক্রিপশনের অর্থ জমিয়ে রাখা, তালিকাভুক্তির পর থেকে কোম্পানি দুটির রক্ষণাবেক্ষণ করা এনটাইটেলমেন্ট এবং তার সম্পর্কিত সাসপেন্স বিও অ্যাকাউন্টে অবণ্টনকৃত বোনাস লভ্যাংশ রাখা।

এ ছাড়া বাংলাদেশ শ্রম আইন, ২০০৬ অনুযায়ী তালিকাভুক্তির পর থেকে ডব্লিউপিপিএফে (ওয়ার্কার প্রফিট পার্টিসিপেশন ফান্ড) অবস্থা এবং এ তহবিলের মুভমেন্টের তথ্য, কোম্পানি দুটির গত দুই বছরের বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) সংক্রান্ত স্ক্রুটিনাইজার রিপোর্টের পর্যালোচনা করা, কোম্পানি দুটির বিগত তিন বছরের আর্থিক বিবৃতি এবং এ বিষয়ের সঙ্গে সম্পর্কিত অন্য যেকোনো বিষয় খতিয়ে দেখবে বিএসইসি।

মেট্রো স্পিনিং পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয় ২০০২ সালে। ‘বি’ ক্যাটাগরির এ কোম্পানিটির পরিশোধিত মূলধন ৬১ কোটি ৬৯ লাখ ৮০ হাজার টাকা। সে হিসাবে কোম্পানিটির মোট শেয়ারসংখ্যা ৬ কোটি ১৬ লাখ ৯৮ হাজার ২৭৫।

এর মধ্যে উদ্যোক্তা পরিচালকদের হাতে ৩০ দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের হাতে ১০ দশমিক ১৯ শতাংশ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে ৫৯ দশমিক ৭২ শতাংশ শেয়ার রয়েছে। রোববার মেট্রো স্পিনিংয়ের শেয়ার সর্বশেষ ২৬ দশমিক ১০ টাকায় লেনদেন হয়েছে।

অন্যদিকে ২০০৯ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়েছে ম্যাকসন্স স্পিনিং মিলস। ‘এ’ ক্যাটাগরির এ কোম্পানিটির পরিশোধিত মূলধন ২৩৮ কোটি ২৩ লাখ ৩০ হাজার টাকা। সে হিসাবে কোম্পানিটির মোট শেয়ারসংখ্যা ২৩ কোটি ৮২ লাখ ৩২ হাজার ৫৩৮।

এর মধ্যে উদ্যোক্তা পরিচালকদের হাতে ৩০ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের হাতে ১৩ দশমিক ৩৭ শতাংশ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে ৫৬ দশমিক ৬৩ শতাংশ শেয়ার রয়েছে। রোববার ম্যাকসন্স স্পিনিং মিলসের শেয়ার সর্বশেষ ২৪ দশমিক ৭০ টাকায় লেনদেন হয়েছে।

spot_img

অন্যান্য সংবাদ