বৃহস্পতিবার, মে ২৬, ২০২২

ওঠা নামার ভেতর দিয়েই বাজার এভাবে এগোবে

পুঁজিবাজার রিপোর্টঃ পুঁজিবাজারে ব্যাংক বিনিয়োগের অধিকাংশ টাকা সুকুক বন্ডে চলে যাওয়ার খবরে হতাশ হয়েছেন বিনিয়োগকারীরা। এই হতাশার ছাপ লক্ষ্য করা গেছে আজকের বড় পতনে। গত সপ্তাহের শেষ দুইদিনও বাজার কমবে কমবে করেও টিকে ছিল। কিন্তু  আজ একদিনে প্রায় ৬৮ পয়েন্ট কমে গিয়ে বাজারকে বিপর্যয়ের মুখে ফেলেছে। লেনদেন কমে গেছে ১১ মাসের মধ্যে সর্বনিন্ম। তবে বাজারের এয়ানালাইসিস নিয়ে কাজ করেন তাদের বিশ্বাস, এভাবে ওঠা নামার ভেতর দিয়েই বাজার এগোবে।

আজ ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৬৭.৫৪ পয়েন্ট বা ০.৯৯ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৬৯৮.০৪ পয়েন্টে। ডিএসইর অপর সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ১৩ পয়েন্ট বা ০.৮৯ শতাংশ এবং ডিএসই-৩০ সূচক ২৩.৫০ পয়েন্ট বা ০.৯৫ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৪৪১.৩০ পয়েন্টে এবং দুই হাজার ৪৩৪.৯৮ পয়েন্টে।

ডিএসইতে আজ টাকার পরিমাণে লেনদেন হয়েছে ৬১৬ কোটি ১১লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট। ডিএসইর আজকের লেনদেন ১১ মাস ২ দিন বা ২২২ কার্যদিবসের মধ্যে সর্বনিম্ন। এর আগে ২০২১ সালের ১৮ এপ্রিল আজকের চেয়ে কম অর্থাৎ ৬০২ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছিল।

ডিএসইতে আজ ৩৭৯টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ২৩টির বা ৬.০৭ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। দর কমেছে ৩৩৯টির বা ৮৯.৪৪ শতাংশের এবং ১৭টি বা ৪.৪৯ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর অপরিবর্তিত রয়েছে।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই এদিন ১৬৫.৪৭ পয়েন্ট বা ০.৮৩ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১৯ হাজার ৬৫৫.৭১ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ২৮২টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ৩০টির, কমেছে ২৩৭টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৫টির দর। আজ সিএসইতে ১৭ কোটি ৫৪ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

spot_img

অন্যান্য সংবাদ