শুক্রবার, মে ২৭, ২০২২

দেরিতে হলেও আর্থিকের হাত ধরে ডিসেম্বর ক্লোজিংয়ের উত্থান শুরুঃ চলবে এমাস জুড়ে

পুঁজিবাজার রিপোর্টঃ সুচক এবং লেনদেন দুটোই বেড়েছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই)। আর্থিজ খাতের শক্ত অবস্থানের পাশাপাশি ব্যাংকগুলোও আজ নড়াচড়া শুরু করেছে।আজকের উত্থানে সবচেয়ে বেশি ভুমিকা রেখেছে আর্থিক খাত যার পরিমান ৩.১৫ শতাংশ।আর ব্যাংকের .৫২ শতাংশ হলেও এই সেক্টরের মুভমেন্টের জন্য আজ শুভ সুচনা হয়েছে বলে অনেকে মনে করছেন।আগামিকাল থেকে ডিসেম্বর ক্লোজিংয়ের এই দুই খাত বাজারকে চাংগা রাখবে বলে অনেকে মনে করছেন। এই শ্রেনীর বিনিয়োগকারিদের বিশ্বাস, ডিসেম্বর ক্লোজিং শেয়ারগুলোর আরো আগে থেকেই বাড়া উচিত ছিল।দেরিতে হলেও আর্থিক খাত দিয়ে যে উত্থান আজ শুরু হয়েছে আগামিকাল ব্যাংকের উত্থান এর চেয়েও বেশি হবে বলে ধারনা করছেন তারা।

এদিকে আজকের বাজার বিশ্লেষণে দেখা যাচ্চে, ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২০.৯৮ পয়েন্ট বা ০.২৯ শতাংশ বেড়ে সাত হাজার ৭২.৭৮ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। আজ ডিএসইর অপর সূচকগুলোর মধ্যে ডিএসইর শরিয়াহ সূচক ১.৮১ পয়েন্ট বা ০.১২ শতাংশ এবং ডিএসই-৩০ সূচক ২.৬০ পয়েন্ট বা ০.১০ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে এক হাজার ৫১১.৩৭ পয়েন্টে এবং দুই হাজার ৬১০.৩৩ পয়েন্টে।

ডিএসইতে আজ এক হাজার ৪৪৯ কোটি ৭৫ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যা আগের কার্যদিবস থেকে ২১ কোটি ৯৬ লাখ টাকা বেশি। আগের কার্যদিবস লেনদেন হয়েছিল এক হাজার ৪২৭ কোটি ৭৯ লাখ টাকার।

ডিএসইতে আজ ৩৮০টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৭৬টির বা ৪৬.৩১ শতাংশ শেয়ার ও ইউনিটের দর বেড়েছে। দর কমেছে ১৪৯টির বা ৩৯.২১ শতাংশের এবং ৫৫টি বা ১৪.৪৭ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর অপরিবর্তিত রয়েছে।

এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ৩০৩টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ১৪৩টির, কমেছে ১২৭টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৩টির দর। আজ সিএসইতে ৬৩ কোটি ৭৯ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

spot_img

অন্যান্য সংবাদ