মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর 27, 2022

বিমা খাতের আধিপত্যের পরেও সূচকে লালের দাগ

পুঁজিবাজার রিপোর্টঃ টানা চারদিন পর আবার লাল হলো সূচকের দাগ। লেনদেন শুরু হতে না-হতেই আগের চার কর্মদিবসের ধারাবাহিকতায় সূচক লাফ দিলেও লেনদেন শেষ হয়েছে পতনের মধ্য দিয়েই। একা বীমা খাত টিকিয়ে রাখতে পারলো না বাজার আজকের বাজার।

এদিন প্রায় সব খাতেই দরপতন হয়েছে। তবে ব্যতিক্রম ছিল সাধারণ বিমা খাত। এই খাতের অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ারদর বেড়েছে। ৪০টি কোম্পানির মধ্যে মাত্র ২টি কোম্পানির শেয়ারদর কমেছে আর আগেরদিনের দর ধরে রেখেছিল একটি কোম্পানি।

আজ সবচে বেশি পতন হয়েছে খাদ্য ও আনুষাংগিক খাতের। এ খাতের ৮০ শতাংশেরও বেশি কোম্পানির দর কমেছে আজ। অন্যদিকে টানা কয়েকদিন উত্থানের তালিকায় থাকা টেক্সটাইল খাতের ৬৭ শতাংশ কোম্পানির দর কমেছে আজ।

এদিন ডিএসইতে লেনদেন শুরু হয় বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়ার মাধ্যমে। ফলে ডিএসইতে লেনদেন শুরুর ২০ মিনিটের মধ্যে প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স প্রায় ৪৪ পয়েন্ট বেড়ে যায়। লেনদেনের শুরুতে দেখা দেওয়া এই বড় ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা সময়ের সাথে সাথে ধারাবাহিক ভাবে পতনে রুপ নিতে থাকে।
লেনদেনের সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে দরপতনের তালিকাও বড় হতে থাকে। শেষ পর্যন্ত ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেওয়া ৩৮০ কোম্পানির মধ্যে শেয়ারের দাম বেড়েছে ১৩৩টির, কমেছে ১৯২টির এবং অপরিবর্তিত আছে ৫৫টির।

তবে আজ সূচক কমলেও লেনদেন গতদিনের চেয়ে বৃদ্ধি পেয়েছে। ডিএসইতে এদিন ১ হাজার ৪২৭ কোটি ৭৯ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে, যা আগের কার্যদিবসের চেয়ে ৯২ কোটি টাকা বেশি।

এদিনে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ১২.৪৯ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৭ হাজার ৫১.৮০ পয়েন্টে। ডিএসইর অন্য সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ৪.৪৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৫০৯.৫৫ পয়েন্টে। ডিএসই-৩০ সূচক ৩.৮১ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ৬০৭.৭২ পয়েন্টে।

বিস্তারিত আসছে…

spot_img

অন্যান্য সংবাদ