মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর 27, 2022

ইস্টার্ন হাউজিংয়ের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে চায় সিটি কর্পোরেশন

পুঁজিবাজার রিপোর্টঃ পুঁজিবাজারে আবাসন খাতে তালিকাভুক্ত কোম্পানি ইস্টার্ন হাউজিংয়ের বিরদ্ধে ব্যবস্থা নিতে চান ঢাকা উত্তর সিটির মেয়র আতিকুল ইসলাম। মিরপুর বেড়িবাঁধে ইস্টার্ন হাউজিংয়ের প্রকল্পের ছয়টি খাল উদ্ধার করে তাতে বেইলি ব্রিজ না দিয়ে দিলে প্রতিষ্ঠানটির সব প্রকল্প বন্ধ করে দেয়ার কথা বলেন তিনি।
স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে রোববার দক্ষিণ সিটি, উত্তর সিটি, ওয়াসা, রাজউকসহ বিভিন্ন সংস্থার সঙ্গে এক সমন্বয় সভায় এসব কথা বলেন মেয়র আতিকুল।
মেয়র আতিকুল ইসলাম এ সময় বলেন, ‘আজ একটি বিষয়ে দৃষ্টি না দিলেই নয়, মিরপুর বেড়িবাঁধে এত বড় ইস্টার্ন হাউজিং হলো, নাকের ডগায় ছয়টি খাল তারা বন্ধ করে দিয়েছে। এত বড় সাহস তাদের কীভাবে হলো? খাল বন্ধ করে দুই ফিট করে পাইপ দিয়েছে, আর এখানে ইস্টার্ন হাউজিং ব্যবসা করছে।’
আতিকুল ইসলাম বিষয়টি নিয়ে মন্ত্রীর কাছে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘এত বড় সাহস তাদের কীভাবে হলো? খাল বন্ধ করে দুই ফিট করে পাইপ দিয়েছে, আর এখানে ইস্টার্ন হাউজিং ব্যবসা করছে। এখন তারা মনে করছে তারা কাজ করবে আর আমরা সরকারি টাকায় ব্রিজ বানাব; এটা হবে না। তারা তো ইনকাম করছে, এটা তাদের দায়িত্ব।
তিনি তখন মন্ত্রীর কাছে ইস্টার্ন হাউজিংয়ের যত প্রজেক্ট আছে, সব বন্ধ করার কথা বলেন।
অবশ্য প্রকল্প বন্ধ করার পক্ষে নন মন্ত্রী তাজুল ইসলাম। তিনি খালগুলো পুনরুদ্ধারের বিষয়ে সিটি করপোরেশনকে উদ্যোগ নিতে নির্দেশ দেন। তিনি বলেন, ইস্টার্ন হাউজিংয়ের প্রকল্প বন্ধ করব না। তারা যে অনিয়ম করেছে সেটার জন্য তাদের সরে যেতে হবে। সিটি করপোরেশন এ কাজটা করবে। আমরা সিটি করপোরেশনের সঙ্গে আছি। আগামী বর্ষায় যাতে কোনো জলাবদ্ধতা না হয়।’
এ ঘটনার প্রেক্ষিতে কোম্পানির উপর কেমন প্রভাব পড়বে তা জানতে কোম্পানি সচিবের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি ফোন ধরেননি।
উল্লেখ্য, সর্বশেষ অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুসারে সমাপ্ত হিসাব বছরের প্রথম দুই প্রান্তিকে (জুলাই-ডিসেম্বর) ইস্টার্ন হাউজিংয়ের শেয়ার প্রতি আয় (EPS) হয়েছে ২ টাকা ৬৪ পয়সা, আগের হিসাব বছরের একই সময়ে যা ছিল ১ টাকা ৯৮ পয়সা।। এ সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি নিট পরিচালন নগদ প্রবাহ (এনওসিএফপিএস) দাঁড়ায় ১৭ টাকা ২৪ পয়সা, যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ৪ টাকা ৩১ পয়সা। প্রান্তিকের শেষ দিনে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদ মূল্য (NAVPS) দাঁড়ায় ৭১ টাকা ৪৬ পয়সা, গত হিসেব বছরের শেষ দিনে যা ছিল ৭০ টাকা ৩৩ পয়সা।
পুঁজিবাজারে সেবা ও আবাসন খাতে তালিকাভুক্ত এ কোম্পানিটির মোট শেয়ারের মধ্যে ৫০ দশমিক ০৯ শতাংশ রয়েছে উদ্যোক্তা-পরিচালকদের হাতে। শূন্য শতাংশ শেয়ার রয়েছে সরকারের কাছে। এছাড়া ৩০ দশমিক ৫৯ শতাংশ প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী, ১ দশমিক ৩৪ শতাংশ বিদেশী ও বাকি ১৭ দশমিক ৯৮ শতাংশ শেয়ার রয়েছে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে।

ডিএসইতে আজ ৬ ফেব্রুয়ারি ইস্টার্ন হাউজিংয়ের লেনদেন শুরু হয় ৫৮ টাকায় এবং সর্বশেষ ০.৬৯ শতাংশ বা ৪০ পয়সা কমে লেনদেন শেষ হয় ৫৭ টাকা ৬০ পয়সায়। শেয়ারটির দর ৫৭ টাকা ২০ পয়সা থেকে ৫৯ টাকা টাকার মধ্যে ওঠানামা করে। এই কার্যদিবসে কোম্পানিটির ৪ লাখ ৬ হাজার ৮৭৪টি শেয়ার মোট ৬১৮ বার হাতবদল হয়, যার বাজারদর ২ কোটি ৩৫ লক্ষ ৭০ হাজার টাকা টাকা।

  • ট্যাগ
  • EHL
spot_img

অন্যান্য সংবাদ