বুধবার, সেপ্টেম্বর 28, 2022

কারন যেটাই হোক তা খুবই সাময়িক অভিমত বিশ্লেষকদের

পুঁজিবাজার রিপোর্টঃ আগে থেকেই ধারনা করা হচ্ছিল যে, এ সপ্তাহের রোববার থেকেই বাজার কারেকশনে যেতে পারে। সেই ধারনাই সত্যি হলো আজ সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসের লেনদেনেই। এর আগে গত সপ্তাহ এবং আগের সপ্তাহ মিলে টানা ৬ কার্যদিবস সুচকের উত্থানে লেনদেন হয়েছে। আজ সুচকের সাথে লেনদেন এবং বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দরও কমেছে। অনেকে মনে করছেন, মুলত ৪টি কোম্পানির আইপিও একসাথে ছাড়ায় এবং সেগুলো এখন লেনদেনে আসা শুরু করায় সাধারন বিনিয়োগকারিরা হাতের শেয়ার বিক্রি করে নতুন শেয়ারের জন্য টাকা সংগ্রহ করছেন। আবার অনেকে মনে করছেন, অধিকাংশ বিনিয়োগকারি ৬ দিনের উত্থানে লাভ পেয়ে তা তুলে নিয়েছেন ফলে বিক্রি চাপ বাড়ায় সুচক কমেছে। তবে যেটাই হোক তা খুবই সাময়িক বলে অভিমত দিয়েছেন প্রায় সব বিশ্লেষক।

এদিকে আজকের বাজার বিশ্লেষনে দেখা যাচ্ছে, আজ প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৩২.৬৯ পয়েন্ট বা ০.৪৬ শতাংশ কমে সাত হাজার ৭৩ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। আজ ডিএসইর অপর সূচকগুলোর মধ্যে ডিএসইর শরিয়াহ সূচক ০.৩০ পয়েন্ট বা ০.০১ শতাংশ এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৫.৯৩ পয়েন্ট বা ০.২২ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে এক হাজার ৫০৮.০৯ পয়েন্টে এবং দুই হাজার ৬২৯.৪৪ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

ডিএসইতে আজ এক হাজার ৪৮২ কোটি ৪৫ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যা আগের কার্যদিবস থেকে ১১৮ কোটি ৭৫ লাখ টাকা কম। আগের কার্যদিবস লেনদেন হয়েছিল এক হাজার ৬০১ কোটি ২০ টাকার।

ডিএসইতে আজ ৩৭৮টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১০২টির বা ২৬.৯৮ শতাংশ শেয়ার ও ইউনিটের দর বেড়েছে। দর কমেছে ২৪৮টির বা ৬৫.৬১ শতাংশের এবং ২৮টি বা ৭.৪১ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর অপরিবর্তিত রয়েছে।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই এদিন ১০৯.৯০ পয়েন্ট বা ০.৫২ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ২০ হাজার ৭০৭.২৭ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ৩০৪টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ৭২টির, কমেছে ১৯৯টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৩টির দর। আজ সিএসইতে ৩৮ কোটি ৮৫ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

spot_img

অন্যান্য সংবাদ