বুধবার, সেপ্টেম্বর 28, 2022

প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারিদের বড় অংশ গ্রহনে টানা উত্থানে পুঁজিবাজার

আশা বাড়ছে বিনিয়োগকারিদের

পুঁজিবাজার রিপোর্টঃ নতুন বছরের ৪র্থ কার্যদিবসেও বিনিয়োগকারিদের সন্তুষ্ট করেছে পুজিবাজার। আজ বুধবার সমসাময়িক টানা পতন পরবর্তি সময়ে সর্বোচ্চ লেনদেন হয়েছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে(ডিএসই)।প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারিদের বড় কেনাকাটার কারনে এমনটি হয়েছে বলে অনেকে মনে করছেন। এদিন লেনদেন হয়েছে প্রায় দের হাজার কোটি টাকা। সুচকের উত্থানটিও ছিল সন্তোষজনক।এ সপ্তাহের ৪ দিন আর গত সপ্তাহের ১ দিনসহ ৫ দিনে মোট সুচক বেড়েছে প্রায় ২০০ পয়েন্ট। আজকের এই উত্থানের কারনে বিনিয়োগকারিরা নতুন করে আশাবাদী হয়েছেন বাজার নিয়ে। একাধিক বিনিয়োগকারি পূজিবাজার ডটকমকে বলেছেন,এই কমিশন টিকে থাকলে ২০২২ সাল হবে শেয়ার বাজার উন্নয়নের সাল।এ বছর আর কোনো বিনিয়োগকারিকে হতাশ হতে হবেনা।যে ১০ হাজার সুচকের অঙ্গীকার করে এই কমিশন দায়িত্ব নিয়েছিল আশা করা যায় এ বছরের মধ্যেই তা সম্ভব হবে।
এদিকে আজ বুধবারের বাজার বিশ্লেষনে দেখা যাচ্ছেচ দিন শেষে দর বেড়েছে ২১৮টি কোম্পানির আর কমেছে ১২১টির। অপরিবর্তিত ছিল ৩৯টি কোম্পানির শেয়ার দর।
লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৪১৪ কোটি ১৬ লাখ ৪৩ হাজার টাকা। এরচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছিল গত ২১ নভেম্বর। সেদিন হাতবদল হয়েছিল এক হাজার ৭৮৬ কোটি ২৭ লাখ ১৮ হাজার টাকা।
এদিন সবচেয়ে বেশি সংখ্যক কোম্পানির দর বেড়েছে আর্থিক খাতে। দ্বিতীয় অবস্থানে ছিল বস্ত্র খাত। বিবিধ, প্রকৌশল খাতেও গেছে ভালো দিন। আগের দিন চাঙা থাকা বিমা খাতের বেশিরভাগ কোম্পানি দর হারিয়েছে। আর সবচেয়ে বেশি বাজার মূলধনের ব্যাংক খাতে বেড়েছে বেশিরভাগ কোম্পানির দর।
দর বৃদ্ধির শীর্ষে কোনো একক খাতের আধিপত্য দেখা যায়নি। বেশ কয়েকটি খাতের কোম্পানির অবস্থান দেখা গেছে এই তালিকায়। গত তিন মাস দর অনেক খানি কমেছে, এমন কোম্পানির প্রাধান্য দেখা গেছে এই তালিকায়।

spot_img

অন্যান্য সংবাদ